রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণা :
সময়ের সাথে সাথে প্রযুক্তিও পাল্টে যাচ্ছে ! তাই বদলাতে হচ্ছে আমাদেরও। আপনি এখন দেখতে পাচ্ছেন সিটি নিউজ পোর্টালের আপডেট ভার্সন। নতুন সাইটে আপনি আরো দ্রুততার সাথে ঝপটপ খবর পড়ে নিতে পারবেন। ২০১৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত আমরা ছয় বার সাইট আপডেট করেছি। অনিচ্ছাকৃত ত্রুটির ক্ষমা প্রার্থণা: ওয়েব সাইটটি আপডেট করার সময় পুরনো সাইটের কমবেশি ১০ শতাংশ খবর ”ডাটালস” এর কারণে কোনও পুরনো লিঙ্ক নাও খুলতে পারে। এটা একান্তই টেকনিক্যাল গ্রাউন্ড। যে কারণে সিটি নিউজের সম্পাদকীয় বিভাগ আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থী। সঙ্গে থাকুন।

মামলা তুলে নিতে হুমকির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

সিটি নিউজ / ১৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৬ জুন, ২০২৪

নগরীর ১৬নং ওয়ার্ডস্থ বেপারী পাড়া এলাকায় কোরবানির চামড়া না দেওয়ায় মো. হোসাইন লিখন নামে এক ব্যবসায়ীকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুড়িকাঘাত করে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর আসামীরা জামিনে বেরিয়ে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান আহত সেই ব্যবসায়ী।

বুধবার (২৬ জুন) বিকেলে বেপারীপাড়া সমাজ উন্নয়ন সংসদ ও ইসলামিক পাঠাগারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে হুমকির বিষয়ে জানান তিনি। তিনি বলেন, আসামীরা জামিনে বের হয়ে আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। তারা বলছে, মারধর তো কিছুই না তাকে (ব্যবসায়ীকে) খুন করলেও কিছু হবে না বলে দম্ভোক্তি প্রকাশ করে রবিন ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা। মার্ডার করে ইতালিয়ান ইউরো (ইতালির মুদ্রা) ঢেলে দিলে সবাই খালাস পেয়ে যাবে বলে হাসিঠাট্টা করে তারা।

লিখিত বক্তব্যে হোসাইন লিখন বলেন, মঙ্গলবার (১৮ জুন) পবিত্র ঈদেও ২য় দিনে মোবারক শাহ রোড পুরান বেপারীপাড়া জামে মসজিদের সামনে পশু কোরবানি করেন তারা। এ সময় এলাকার কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী তাদের পশুর চামড়া জোর করে নিয়ে যেতে চায়। তখন তার ছোট ভাই সায়মন আলী বাঁধা দেয় এবং প্রতিবছর এই চামড়া মাদ্রাসায় দান করে বলে জানায়। চামড়া না দেয়ায় ঐ সন্ত্রাসীরা তাদের কিশোরগ্যাং বাহিনী নিয়ে এসে সায়মনকে বিভিন্ন হুমকি, অশ্লীল গালিগালাজ ও ভয়ভীতি দেখায়। তখন ছোট ভাইকে রক্ষায় এগিয়ে আসলে রবিন নামে এক সন্ত্রাসী হত্যার উদ্দেশ্যে তার হাতে থাকা ছুড়ি দিয়ে হোসাইন লিখনের পেটে আঘাত করে তাকে রক্তাক্ত জখম করে। এতে লিখনের পেটে নাভির বামপাশে ৯টি সেলাই পড়ে।

এই ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় মোঃ সায়মন আলী বাদি হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করে। যা পরবর্তীতে মামলা হিসেবে রুজু হয়। মামলার আসামীরা হলো, বেপারী পাড়া এলাকার মৃতঃ গিয়াসউদ্দিন এর ছেলে চিহ্নিত সন্ত্রাসী রবিন (৩৫), বেপারীপাড়া পুরান মসজিদ এলাকার কবির হোসেনের ছেলে অনিক (৩০), দেওভোগ পাক্কারোড এর শাহীনের ছেলে সাঈদ (৩০) ও শুভ (৩৫), একই এলাকার আরেক বিবাদী সানি (২১) ও বেপারীপাড়া এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাবু ওরফে মদুদি বাবু ( ৪৫) সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জন।

লিখিত বক্তব্য শেষে হোসাইন লিখন বলেন, আমার পেটে চাপাতি জাতীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা এবং আমাদের দুই ভাইকে চরম মারধরের পুরো ঘটনা সিসি টিভির ফুটেজে স্পষ্ট আছে। কিন্তু আসামীরা সেই ফুটেজের কিছু অংশ কাটছাট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করছে এবং আমাদেরকে চাঁদাবাজ বানাতে চাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে এই অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা জানান হোসাইন লিখন।

তিনি বলেন, সাংবাদিক ভাই ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি, এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে যারাই প্রকৃত অপরাধী তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হোক। আমরা প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী পরিবার থেকে উঠে এসেছি। অত্যন্ত সুনামের সহিত ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি।

সবশেষে তিনি বলেন, আমি প্রশাসনের প্রতি বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি, যেন তারা এই ঘটনার সঠিক তদন্ত করে শীগ্রই দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসে।

এদিকে, মামলার আসামীদের সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হামলাকারীরা এলাকার প্রকৃত বখাটে, কিশোর গ্যাং লিডার, মাদকের ডিলার, মাদকসেবীসহ নানা অপরাধে অভিযুক্ত। এমনকি প্রধান আসামী রবিন প্রায় ১০ বছর আগে একটি শিশুকে ইট দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। সেই ঘটনায় বিচার-শালিসের মাধ্যমে তার শাস্তি হয়। এলাকাবাসীও এই অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বেপারীপাড়া সমাজ উন্নয়ন সংসদ ও ইসলামী পাঠাগারের সিনিয়র সহ-সভাপতি আহমদ আলী, সহ-সভাপতি রফিজউদ্দন চৌধুরী, কামরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ফেরদৌস ওবায়েদ, ক্রীড়া সম্পাদক মামুন দেওয়ান, প্রচার সম্পাদক শামছুর রহমান কাজল, সহকারী প্রচার সম্পাদক রাজন, সদস্য মহসীন মিয়া, লিখন মিয়া প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিভাগীয় সংবাদ এক ক্লিকেই