শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণা :
সময়ের সাথে সাথে প্রযুক্তিও পাল্টে যাচ্ছে ! তাই বদলাতে হচ্ছে আমাদেরও। আপনি এখন দেখতে পাচ্ছেন সিটি নিউজ পোর্টালের আপডেট ভার্সন। নতুন সাইটে আপনি আরো দ্রুততার সাথে ঝপটপ খবর পড়ে নিতে পারবেন। ২০১৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত আমরা ছয় বার সাইট আপডেট করেছি। অনিচ্ছাকৃত ত্রুটির ক্ষমা প্রার্থণা: ওয়েব সাইটটি আপডেট করার সময় পুরনো সাইটের কমবেশি ১০ শতাংশ খবর ”ডাটালস” এর কারণে কোনও পুরনো লিঙ্ক নাও খুলতে পারে। এটা একান্তই টেকনিক্যাল গ্রাউন্ড। যে কারণে সিটি নিউজের সম্পাদকীয় বিভাগ আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থী। সঙ্গে থাকুন।

কার্টুন দেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে দুই শিশুকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

সিটি নিউজ / ৪৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১২ মার্চ, ২০২৪

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সৈয়দপুরে টিভিতে কার্টুন দেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে দুই শিশুকের ধর্ষণ করেছে শিপন আহমেদ (৩৪)। এ ঘটনায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) নারায়ণগঞ্জ এর একটি টিম অভিযান চালিয়ে সিলেট থেকে অভিযুক্ত শিপন নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে। মঙ্গলবার (১২ মার্চ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান নারায়ণগঞ্জ পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার আল মামুন শিকদার। এরআগে ভিকটিমদের বাবা রবিবার (১০ মার্চ) সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, ৮ ফেব্রুয়ারি বাদীর দুই মেয়ে শিশুকে টিভিতে কার্টুন দেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে শিপন আহমেদ তার ঘরে ডেকে নিয়ে নাবালিকা মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। বাদীর স্ত্রী শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় গত জানুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাদীর শ্বশুর বাড়ি চাঁদপুরে চলে যান।
৭ ফেব্রুয়ারি নাবালিকা মেয়েকে (ভিকটিম) একই এলাকায় বসবাসরত তার ফুফুর কাছে রেখে টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমায় চলে যান বাদী। ১১ তারিখ মোনাজাত শেষে বাড়ি ফিরে ধর্ষণের ঘটনা জানতে পারেন।
পরে বিচার শালিসের নামে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা আসামিকে পালাতে সহায়তা করে। পরে তিনি পালিয়ে যান বলে জানা যায়। এরপর মামলা দায়েরের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।
১০ মার্চ মামলার ভিকটিমদেরকে বিজ্ঞ আদালতে উপস্থাপন করা হলে ভিকটিমরা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাফিয়া শারমিনের আদালতে আসামির বিরুদ্ধে ধর্ষণের স্বপক্ষে জবানবন্দি দিয়েছে।
ভিকটিমদের এবং তার প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, উক্ত ধর্ষণের ঘটনা কাউকে জানালে আসামি শিপন ভিকটিমদের হত্যা করে মরদেহ গুম করে ফেলার হুমকি দেন। ঘটনার সময় আসামি শিপনের স্ত্রী ইতি আক্তার তার সন্তানসহ তার বাবার বাড়ি পুরাতন সৈয়দপুর এলাকায় ছিলেন। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে আসামি শিপন আহমেদ নাবালিকা ভিকটিমদের ধর্ষণ করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিভাগীয় সংবাদ এক ক্লিকেই