শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণা :
সময়ের সাথে সাথে প্রযুক্তিও পাল্টে যাচ্ছে ! তাই বদলাতে হচ্ছে আমাদেরও। আপনি এখন দেখতে পাচ্ছেন সিটি নিউজ পোর্টালের আপডেট ভার্সন। নতুন সাইটে আপনি আরো দ্রুততার সাথে ঝপটপ খবর পড়ে নিতে পারবেন। ২০১৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত আমরা ছয় বার সাইট আপডেট করেছি। অনিচ্ছাকৃত ত্রুটির ক্ষমা প্রার্থণা: ওয়েব সাইটটি আপডেট করার সময় পুরনো সাইটের কমবেশি ১০ শতাংশ খবর ”ডাটালস” এর কারণে কোনও পুরনো লিঙ্ক নাও খুলতে পারে। এটা একান্তই টেকনিক্যাল গ্রাউন্ড। যে কারণে সিটি নিউজের সম্পাদকীয় বিভাগ আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থী। সঙ্গে থাকুন।

আওয়ামী লীগের বাইরের প্রার্থীদের জোটবদ্ধ করতে চায় “জাতীয় সমন্বয় কমিটি”

রিপোটারের নাম / ১৩২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: ক্ষমতাসীনদের আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের টক্কর দিতে মাঠে নামছে নতুন রাজনৈতিক জোট। ১০১ জন বিশিষ্ট নাগরিকের সমন্বয়ে গঠিত জাতীয় সমন্বয় কমিটি বিরোধী দলীয় ও স্বতন্ত্র ১ হাজার ৫শ জন প্রার্থী থেকে ৩০০ বাছাইকৃত প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে মাঠে নামবে এই জোট। সোমবার এই জোটের সমন্বয়ক নতুন বাংলা এর চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন ফাইটন এ ব্যাপারে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সাথে বৈঠক করেছেন। রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বাংলাদেশ কংগ্রেস, গণমুক্তি জোট ও গণ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা অংশ নেন। বাংলাদেশ কংসের মহাসচিব মো. ইয়ারুল ইসলাম, গণমুক্তি জোটের চেয়ারম্যান ড. শাহরিয়ার ইফতেখার ফুয়াদ ও গণ কংগ্রেসের চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন সমন্বয় সভায় উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে জাতীয় সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক ও নতুন বাংলা এর চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন ফাইটন বলেন, তৃণমূল বিএনপি, বাংলাদেশ কংগ্রেস, গণমুক্তি জোট, গণ কংগ্রেসসহ স্বতন্ত্র প্রার্থীরের আলোচনা হয়েছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর শনিবার আওয়ামী লীগের বাইরের প্রার্থীদের থেকে যোগ্য ৩০০ প্রার্থীকে সমর্থন দিবে জাতীয় সমন্বয় কমিটি। এই ৩০০ প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনের মাঠে গণজোয়ার সৃষ্টি করে আওয়ামী লীগকে বিরোধী দলীয় আসনে বসানো হবে।

বাংলাদেশ কংসের মহাসচিব মো. ইয়ারুল ইসলাম বলেন, জাতীয় সমন্বয় কমিটি ভালো উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তাদের উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। দলীয় ফোরামে আলোচনা সাপেক্ষে তাদের জোটবদ্ধ হওয়ার বিষয়ে চ‚ড়ান্ত নেওয়া হবে। সুশীল সমাজ যদি আমাদের প্রার্থীদের পক্ষে মাঠে নামে তাহলে প্রার্থীরা বেশি ভোট পাবে।

গণমুক্তি জোটের চেয়ারম্যান ড. শাহরিয়ার ইফতেখার ফুয়াদ বলেন, দলের যোগ্য প্রার্থীরা জাতীয় সমন্বয় কমিটির সমর্থন পেয়ে ভালো ফলাফল করতে পারবে। তবে এ বিষয়ে দলীয় ফোরামে আলোচনা সাপেক্ষে তাদের জোটবদ্ধ হওয়ার চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

গণ কংগ্রেসের চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগের এক দলীয় শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে নতুন জোট অগ্রনী ভ‚মিকা রাখবে। সকল দলের ঐক্য গড়তে পারলে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের পরাজিত করে সরকার গঠন করা সম্ভব হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিভাগীয় সংবাদ এক ক্লিকেই